কম্পোজ

নাচছে

অর্থাৎ ব্রা পড়েনি মেয়েটি
কিম্বা ব্রায়ের জায়গায় ঝুলিয়ে রেখেছে
নীল গ্রহের টনিক

বাঁ হাতে অন্ধকার গ্লাসটি বুধের মতো স্থির
টাগরায় ছুঁড়ে দিচ্ছ সল্টেড বাদাম আর ঘোড়ায় টানা
মেয়েটা ঝুম বরাবর তছনছ

মনে করো একটা প্রাচীন স্নানঘর
ষ্টীল-গ্রে জলের মার্বেল উঠে গেছে সিঁড়ির ধাপে ধাপে
আগুনের তলা থেকে মাটির মোমবাতি
কোহল পোড়ার গন্ধ হাতের তালুতে ...

ততক্ষণে মেয়েটি ফোয়ারাদুধ
নাচতে নাচতে খিদে পাচ্ছে খুব
আর তোমার গ্লাসটাও স্নানের অধিকার পেয়েছে
তিন দিন লাগাতার



4 মন্তব্য(গুলি):

subir roy বলেছেন...

এটা ঠিক কোন জাতের কবিতা, স্বল্প বুদ্ধিতে বোধগম্য হ'ল না। দোষটা বোধহয় আমার-ই।

Ashoke Tanti বলেছেন...

নীল গ্রহে তিনদিন ফোয়ারাদুধে স্নান !! ফারাও বা ব্রুনেইয়ের সুলতানের জন্য !!

Unknown বলেছেন...

এগুলি কি কবিতা বুঝতে পারলাম না বিন্দুবিসর্গ ও । তাই ভালো কি মন্দ বলতে পারলাম না। আর কেউ যদি বুঝতে না পারে নিজের ডাইরিতে লেখা থাকাই ভালো।

Ashfaque habib Chowdhury বলেছেন...

ভালোই। অন্যরকম।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About