জীবন

বিকেলের চা নিয়ে বারান্দায় বসে আছি ---
সামনে যমজ রাস্তা এপার ওপার।
প্রতি অপরাহ্নে এক প্রৌঢ়র দ্রুতপদে
বিচরণ তার একটিতে---
সৌম্য, ক্ষীণতনু হাঁটেন স্বাস্থ্য কামনায়।
হাসি পায়, নিজেকে অবজ্ঞা করে করে
কেমন স্থবির হয়ে গেছি।

দিন যায়, মাস যায় ---
প্রৌঢ় বৃদ্ধ হন, হাঁটেন তখনও
যষ্টি দেখি হাতে তার।
কিছুদিন পর তার সহচরী
এক কিশোরী, দাদুর সঙ্গ দিতে।

দিন যায়, মাস যায় ---
চা হাতে সান্ধ্য সূর্য দেখি,
কিন্তু কদিন তো বৃদ্ধকে দেখছি না!
হয়তো ভ্রমণে গেছেন কোন দূরান্তে,
হয়তো বা ক্লান্ত দেহ বিশ্রাম চাইছে।

দিন যায়, রাত যায় ---
অকস্মাৎ দেখি সেই পথে একাকিনী
কিশোরী, হাতে তার সেই যষ্টি,
ও কেন একা হাঁটে যষ্টি হাতে?
জিজ্ঞাসিলাম, ও কইলো,
এ পথেই তো দাদু ফিরবেন একদিন,
তিনি যে যষ্টি নিতে গেছেন ভুলে।

দিন যায়, মাস যায় ---
স্থবির পৃথিবী আমার পানে চায়।


0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About