আমার চিঠিটা

তোমাকে স্পষ্ট দেখি নি কোন দিন
তবু, বোঝা যায় ছাতিম হয়েই আছো--
জানলা খোলা, বেবাক হাওয়ায়
উড়িয়ে দিয়েছো যত মাকড়ের জাল

আমার কোঁচড়ে কিছু ফুল,-- মেলে ধরি
নীল সুষমায়, নীরব লজ্জায়--
যে তানে পাখি গায়
প্রথম দেখায় তুমি সেই সুরে ডেকেছিলে...
আমার সে কিশোরবেলায় তখন তারার বাজি
হাতছানি, সলাজ কিশোরী, লটারির ঘোরানো চাকা।
আমি অপটু বালক, পাটকলের গাদা বোটে
চলে যাই নদীর কাছেই, বসে থাকি
ফেলে যাওয়া কামান-চূড়োয়

কোন পথে এসেছিলে, মনে নেই আর
জোব্বার পকেট থেকে একটা পালক দিলে
আর সে-ই সম্মোহনী সুরে গাইতে গাইতে
এগিয়ে যাচ্ছিলে, আর আমি পিছু পিছু...
হারিয়ে গেলাম ক্রৌঞ্চদ্বীপে---
এখানে তোমার ছায়া পাই, দেখা পাই না

রক্তকরবী বনের পরেই বুঝি ডাকঘর!
আমার চিঠিটা আছে তো সেখানে?

1 মন্তব্য(গুলি):

Dipankar বলেছেন...

বাঃ, কেমন অতীতে ফিরে গেলাম

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About