আমরা দু’জন হয়ত থাকি এক গাঁয়ে

আমরা দুজন হয়ত থাকি এক গাঁয়ে
সুখও আছে মনের গোপন কোণটাতে  
(তবে)  
তার গাছে আর গায়না দোয়েল পাখী  
শোনার ইচ্ছে যতই থাকুক মনটাতে। 

ব্যস্ত জীবন শূন্যতা তাই বট তলায়
মেষ শাবকও একলা ঘোরে আনমনা     
শুকিয়ে গেছে সেই নদীটি, অঞ্জনা
ফাঁকফোকরে উঁকবুকি  গ্রাম খঞ্জনা      
আমার নামটি হয়ত জানে পাঁচজনে  
মনের কোণায় যে নাম, কি নাম ? বলবনা ।

পাড়ায় পাশে জাগছে পাড়া একসাথে
মুখর সারা ফাঁক ফোকরে দোকানপাট
হারিয়ে গেছে বনের সাথে মৌমাছি
নালার জলে ফুলের মালা, নেইকো ঘাট 
হাটের পাটও স্মৃতির কোণায় শুকনো কাঠ 
শপিং মলের কর্নারেতেই ফ্লাওয়ার মার্ট 
জবার মালা ভুল করে কেউ বলবে না ।
স্মৃতির ধুলোয় বিবর্ণ গ্রাম খঞ্জনা
আবছায়াতে ধূসর নদী অঞ্জনা
আমায় জানে কাছে পিঠের পাঁচজনে
মন জুড়ে সেই তারই নামটি ...

না, বলবনা।   

ফ্ল্যাটের সারি অ্যাভিন্যুএর দুই পাশে   
ঝুল বারান্দায় ছন্দপতন রঙ বাহার 
জায়ান্টস্ক্রিনে দুলছে হাওয়ায় সরষে খেত 
আকাশ খুঁজে দু চোখ যখন শ্রান্ত সার ।
ভাগের ছাদে স্বপ্ন দেখা নিষেধ তাই  

যুদ্ধ চলে ডিজিট কী-এর রোদ ছায়ায়   
ইচ্ছে মত গ্রীষ্ম শ্রাবণ যায় আসে 
ছদ্ম হাওয়া মন ভুলিয়ে প্রাণ জুড়ায়     
বিলুপ্ত প্রায় ছোটবেলার খঞ্জনা
বাঁধ-বেড়ীতে শুকনো নদী অঞ্জনা 
নামে মাত্র জানে আমায় পাঁচ জনে 
মনের মধ্যে ফসিল যে নাম, সে নাম ?
কি যায় আসে, বলব না ।   

2 মন্তব্য(গুলি):

Dipankar বলেছেন...

ভালো লাগলো

Probuddha Parashar বলেছেন...

কবিপ্রণাম

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About