কোথায় হরিয়ে গেল

কিছু মনে থাকে না,তাই লিখে লিখে রাখি হাতে।

বেশ কিছু বছর পেরিয়ে এসেছি,সঙ্গে ছায়া নিয়ে।

এখনো মনে হয় ও আমার কোলে মাথা রেখে আদর খাচ্ছে।



আমার শূন্য হাত ঘুরে বেড়ায় এঘর ওঘর হাতড়ে বেড়াই

হাওয়া আর আকাশ।

লাল পাখি,নীল গাছ, আর কালো আকাশ.........



একটু একটু করে গড়ে তোলা সোহাগের বীজখানি

আদরে আহ্লাদে ভরিয়ে রাখা ঐ হাসি মুখখানি

এক- পা, দু- পা এগিয়ে গেল আমার হাত আর আঙ্গুল ছেড়ে ...............



হঠাৎ করে খবর এলো, আর ফিরবে না সে ঘরে,

হারিয়ে গেল হৃদপিণ্ড, হারিয়ে গেল সম্বল

হারিয়ে গেল ভরসা, আর হারিয়ে গেল ঐকাল।



এতদিনের স্বপ্নবোনা, এখন হল স্মৃতি,

মেয়ের মুখের হাসি যখন মিলিয়ে হল লিপি।

কেউ নেই যে পথ দেখায় হারানো মেয়ের পথে,

শুধুই এখন হাতরে বেড়াই অতীত আর অতিতে।



কেন হোল? ......... কেনই বা হোল?

কে দেবে উত্তর?

শুধু জানি, ও আছে এখনো কোথাও ............



আমি হাতড়াই, হাতড়ে বেড়াই

আর পা হই দিগন্তর ।।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About