মুখোশহীন কেউ..

দিবান! বহুদিন বেদনায়,
বহুদিন আত্মখননে,মেঘে মেঘে-
মাকড়সার সোনালী ফাঁস হাতে,
পাখি কার একলা পাখি।তোমার টানে সব শরীর ঠুকরে খেয়েও
দু-জোড়া ঠোঁট বাঁচিয়ে রাখে।
ভালবাসার দীর্ঘ সিঁড়ি,তার নিচে
ভুল-ভ্রান্তি কিছুই জানতে দেয় না
মুখের নীচে মুখোশ আঁকা।তবু
তার নাম ভালবাসা!
আসলে নিজে যাকে ভালবাসে মানুষ-
তাকেই সমুদ্রই মনে হয় ডোবা হলেও!
অনন্ত কুয়ার জলে চাঁদ পড়ে ডুবে
কে আর তার খবর রাখে?দিবান,
তোমায় কিছু দেইনি প্রীতির ছায়াতলে
তাই তুমিই হয়ত ঠিক
অঙ্গে যা পায় তাই থাকে সঙ্গে।
যদি পারো নীলাঞ্জন ঝরিয়ে যেও রম্য চিতাপটে..
আমি মানুষ ছিলাম মুখোশহীন কেউ..
যাকে চিনলো না
মুখোশময় পৃথিবী এমন কি তুমিও
না...

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About