সুন্দর সেই সৃষ্টির খোঁজে

কত চড়াই উৎরাই পেরিয়ে এসে --কুমায়ুন পর্বতের পথে ,দেখা হল  বেগুনী ফুলে ভরা  বিশাল এক গাছের সাথে ।বিমুগ্ধ দু -নয়নে চেয়ে দেখি থরে থরে কত ফুল ! আকাশে মেলে দেওয়া ডালপালায় ছড়ান আত্মতৃপ্তি ।
হঠাৎ চেয়ে দেখি পাহাড়ের গায়ে ফুটেছে লাল সাদা হলুদ বাহারী ফুল । কোমল হাতের স্পর্শে বলি --কেমন করে ফুটেছ তোমরা ! মাটি নেই ,জল নেই ,এই রুক্ষ শুষ্ক বুকে ?ফুলেরা মাথা দুলিয়ে হাসে ।শুকনো বীজগুলো তুলে এনেছি সেই পাহাড়ের কোল থেকে ।ছড়িয়ে দিয়েছি আমার টবে । প্রতিদিন ঢেলেছি জল ,খুঁড়েছি মাটি ,দিয়েছি ছায়া- মায়া । বীজ থেকে অঙ্কুর , অঙ্কুর থেকে চারা --তারপর একটু একটু করে বড় হওয়া । এক পশলা বৃষ্টিশেষে ফুল ফোটে ,প্রতিদিন ।একটু যত্নে ,একটু স্পর্শে ওরা ফুটবে ,ভরিয়ে দেবে প্রাঙ্গণ । 
মাটির বুকে ফুটে ওঠা ফুলের দিকে তাকিয়ে বলি --সৃষ্টি তুমি সুন্দর ! 
                                          

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About