চার টুকরো
  
সাগরের তীরে

স্বপ্নেরা জাগে,স্বপ্নেরা ভেঙে যায়
ফের ধীরে ধীরে
সাগরের তীরে
ঘর গড়ে ওঠে।
পাখিদের ঠোঁটে
বাঁশি বাজে আর ভৈরবী গান গায়।

বালুচরে

ভেবেছ—চেনো তুমি। সত্যিই চিনেছ কি?
হয়তো চেনো মুখ
হাত পা গলা বুক।
ওখানে দাও দাড়ি।
করো না বাড়াবাড়ি।
তোমরা নদীচরে তুচ্ছ চখাচখী।

ঘুড়ি

পূর্ণিমারাতে চাঁদ যেন ঘুড়ি।
সারারাত ওড়ে
অলিগলি ঘোরে।
লাটাই ঘুরোলে
আঁধার ফুরোলে
বেকার তখন সুতোকাটা বুড়ি।

মানুষ জানে

কোথায় আঘাত দিতে হয়—সেটা মানুষের জানা।
পশু থাবা মারে হাতে আর পায়ে
পাখি রেগে গেলে ঠোকরায় গায়ে।
কিন্তু মানুষ ঘা-টি দেয় আঁতে,
সব থেকে ব্যথা দিতে পারে যাতে।
তাই খোসা ফেলে-- দাঁতে পিষে খায় বাদামের দানা।    

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About