হত্যা...

সর্বশেষ ধর্ম প্রবর্তক কবেই ফিরে গেছে।তার প্রচারিত ধর্মে
ছোপছোপ রক্তদাগ! বুদ্ধের সমাধি ভাঙতে চেয়েছি বহুবার,বহুবার
তছনছ করেছি নিজেকে।যীশুর মত রক্তাক্ত দাঁড়িয়ে থেকেছি,শান্তির
সুরা জপতে জপতে যেখানে থেমেছি,দেখেছি হত্যা!
হত্যা আকাশে,হত্যা সমুদ্রের গহীনে,হত্যা দেখেছি নিবিড় জঙ্গলে।
হত্যা ঘৃণায়,হত্যা ভালবাসার মনে।হত্যা লেখা কাঁটাতারে!রাজপথে
হত্যা,হত্যা মায়ের পেটে,হত্যা দেখেছি দেবালয়ে!হত্যা
চেতনায়,হত্যা মূল্যবোধে,হত্যা পতাকার তরে!
ঘরে ও বাইরে হত্যা,হত্যা পরীক্ষার খাতায়।হত্যা কবিতা ও উপন্যাসে!
হত্যা বাঁচায়,হত্যা কলমে,হত্যা সময় অসময়ে,হত্যা
প্রকাশ্যে এবং অন্তরালে!

আমি যখন ঈশ্বর...
আগুন সৃষ্টির দিন থেকেই
যে ভালোবাসার জন্ম
ধর্মের মত আমিও
তাকে আপন স্বার্থে লিখে গেছি
আর নারীর জীবন ছোট হতে হতে
ভোগের প্রসাদ হয়ে গেছে
পুরুষের মন্দিরে মন্দিরে
লিঙ্গ পূজার আদলে
কেবল আমার জন্যই
আমার ধর্মগ্রন্থের শ্লোকে।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About