শনির দশা

জীবনের প্রতিটি পরতে পরতে
কণ্টকরাশি তীক্ষ শুলের মত
শুয়ে আছে রক্ত পিপাসু সৈনিকের মত
এই বাঁধা,এই কণ্টকাকীর্ণ পথ
দক্ষ মাঝির মত বৈঠা চালিয়ে পার হওয়া কঠিন।

আমি ফেরারী পথিক !
তাই বারবার পথভ্রষ্ট হয়ে পড়ি।
বাধার সমূদ্রে আমার হাল চলে না
হাঙরের মুখে আটকে যায় নিয়তির নীতিমালা
বাস্তবতার মুখে পতিত ফলের মত
দিগি¦দিক ছোটাছুটি করে তারপর নীরব হয়ে যায়
মুঠো মুঠো সুখ-বসন্ত,সাতরঙা প্রেম
তখন যে কুড়িয়ে পায়,আমি তারই
শুধুই তারই হয়ে যাই ভোগপাত্রের উপরে।

অমানিশার ঘোর অন্ধকারে
পীড়িতের আর্ত চিৎকার কেউ শোনে না
শিকলের বাঁধন মানে না মন
বিরহের লাল গালিচায় আটকে থাকে
প্রেম-প্রীতি-ভালোবাসা,সুখ-শান্তি-সমৃদ্ধি।

ব্যর্থতার প্রহর গুণে গুণে
হৃদয়ের বিহঙ্গ খেয়ে যায় ঘুণে
উই  পোকা খেয়ে যায় সুরের হারমোনিয়াম
তবু এ জীবনের শনির দশা কাটে না
কাটতেই চায় না।

মনে মনে সুখের মাদুলী বুনে কী লাভ?

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About