আবাহন

একসাথে আয় ,
চল তো দেখি , আকাশ থেকে
মেঘ সরিয়ে ,
ছিনিয়ে আনি
আঁধার ভাঙা , জ্বলন্ত ওই -
লাল টুক টুক
সূর্য্য খানা ।
সমাজ ঢাকা , ঘোর কুয়াশায় ,
আয়  , নিজেরাই হই  দধীচি !
শরীর থেকে  অস্থি খুলে ,
আচমকা দেই
বজ্র হানা ।
আয়তো দেখি , দুরন্ত সব
সজীব প্রাণের
ছেলের দল ,
ভেদাভেদের ভাঙ্গতে পাচিল ,
তোরা ই হবি
জাতির বল ।

আয়তো দেখি , হার না মানা ,
উষ্ণ  খুনের -
তরুণ দল ,
শির উচিয়ে , বক্ষেতে ধর
মত্ত হাতীর
অসীম বল ।

মায়ের দেহ খাচ্ছে ছিড়ে ,
রক্তলিপ্সু
পশুর দল ।
একসাথে আয় , সমাজ গড়ি ।
মোছাই মায়ের
অশ্রুজল ।

তোদের চোখেই জ্বলবে আগুন  ,
জয় করেছিস
মৃত্যুভয় ।
আঁধার মুছে আনবি তোরাই ,
নতুন দিনের

সূর্য্যোদয় ।।

1 মন্তব্য(গুলি):

PALASH KUMAR Pal বলেছেন...

ছন্দময়। দধীচি হওয়ার সময় এসেছে এখন। নাহলে মুক্তি নেই!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About