অপ্রকট নির্জনতা

এক

কালো দাগ মুছে ফেলা গোপন অসুখ
তুমি শুয়ে আছো আজ  ক্যালেন্ডারে
ঝরাপাতা, উড়ন্ত আঁচল দিয়ে  ঘেরা এক নির্মম বুননে

জলশাঁখ বেজে ওঠে বুকের কার্নিশে
শব্দ ছিটকে যায় ফুঁ য়ে 
তোমার অপ্রেম স্পর্শ   শরীরের  ভাঁজে বিষ দাগ
হয়ে বসে আছে

চলে যাচ্ছে  ঐ দাগ    অপরাহ্ণে  দলছুট    আলো
দুই

মাঠ বলতে  সবুজের সমারোহ
টুকরো টুকরো  আলো এসে তার গায়ে নির্জন স্বাক্ষর  রেখে
যায়তখন  কারুকাজ করা   মনখারাপ 
ছিটকে যায় দূরে ঐ নদীর কিনারে

বৃষ্টির জানলা খুলে
কেউ এলো  তার হাতে বন্ধুত্ব স্মারক


বিদ্যুৎলতার মতো এক  ঝলক সুখ

2 মন্তব্য(গুলি):

PALASH KUMAR Pal বলেছেন...

কবিতাদুটি পড়ে বুকের কার্নিশে জলশাঁখ বেজে উঠল।

ratnodipa de ghosh বলেছেন...

এই কবির কবিতা ... বিদ্যুৎ এবং তড়িৎলতা ...

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About