কৈশোরের দিনগুলি

এক্কা দোক্কা
দুই
  বিনুনি 
দৌড়ে চলা
নেই ঝিমুনি ।
চেঁচিয়ে কথা
নেই
  কোন ব্যথা
উচ্ছল হাসি
সদাই হাসি।
গলা ছেড়ে গান
হাসে মন প্রাণ ।
 
হঠাত
  বেড়ে ওঠা 
ইচ্ছে শুধু ছোটা।
ছুটতে ছুটতে
 
খেলতে খেলতে
  
ছয় ঋতু শেষ হয়
দেখতে দেখতে ।
গ্রীষ্মের দুপুরে
 
ডেকে নিয়ে বন্ধুরে
কাঁচা আম লবনে
কী মজা লাগে প্রাণে।
সময় অসময় কিছু নেই
 
ঝাঁপ দিয়ে জলে ভেসে
 
সুখ সাঁতারেই।
দিনগুলি কাটে
এতো তাড়াতাড়ি
 
কখন যে কৈশোর
দিয়েছে পাড়ি।
ভাবি বসে বসে
 
মন হয় ভারি।

অবেলা


এই অবেলায়
স্নিগ্ধ ছায়ায়
বাজছে বাঁশি
হাওয়ায় ভাসি ।
সুরের
  রেশ
লাগলো বেশ
 
মন মাতালো
দিক হারালো।
যেথায় সেথায়
কেবল হারায়
কি ভাবে
  সে
তা জানে সে ।
আমি শুধু
  শুনি
সুরের
  সুরধুনী 
হোক অবেলা
 
এই তো খেলা
জীবন
   নিয়ে 
দেয় ছড়িয়ে
 
মন ভরিয়ে
 
যাই হারিয়ে
 
দূর
  ভুবনে
আপন মনে ।
এইতো খেলা
 
সারাবেলা ।
হোক না যতো
হিসেবে মতো
তবুও আসে
ভালোবাসে ।
জীবন বয়ে যায়
হৃদয় ভরে তায় ।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About