দীর্ঘ কবিতা



গুঁড়োচাঁদ

বালিশে ভরে দিলাম চাঁদগুঁড়ো
বালিশ হলো রাতআকাশ
আমি মাথা রাখলাম আকাশে

ও ভালোবাসা,
ডানা মুড়ে খানিক বসো না
আমার চোখপল্লবে?


জন্মরাতে তোমার যুগল স্তনবৃন্তে
টাঙানো ছিলো বৃষ্টিমেঘ
আর মাঝের উপত্যকা মাটিতে
দাউদাউ আগুনে
নবজাতকের নিভৃত পরম ওমআশ্রয়

এখন সকাল
আগুনভেজা শরীর
চলেছে জীবিকানির্বাহে


মল্লারে বড্ডো বুক নিঙড়োয়
আর উঠোন উপচে
দাওয়ার মাটি পিছলায়

তার চেয়ে বরং
তোমার রোদেল মেঘের গল্প বলো
যার আলোছাতার নিচে দাঁড়িয়ে
আমরা বেশ
ঘামকলমে
এ ওর পিঠে পদ্য লিখবো


তোমার ঠোঁটে
শব্দ বুনবে
আমার ঠোঁট

এক অক্ষরের লাগবে সাতটা জীবন মোট 


পৃথিবীর অন্য কোনো কোণে
তোমার গোপন দিঘিজলে
স্নান করছে আমার কবিতা

যখনই ভঙ্গুর হই
এই বোধ হাত ধরে
আমাকে হাঁটায়


জলের ওপর হাসিঢেউ
নাকি আস্ত একটা মুচকিনদী

কী হয়ে উঠবো?
কী হতে পারলে
চড়া পড়বে দামোদরে
যার স্রোতে কাল রাত্রে
হারিয়ে গিয়েছে
আমার প্রিয় কবিতার
শব্দ অক্ষর আত্মীয়স্বজন


এখানে ১৫ ডিগ্রির শীতবাতাসে
সারাদিন সেই মনকেমনের জুঁই গন্ধ -
যা ছড়িয়ে পড়েছে
পৃথিবীর সৃষ্টিইতিহাস নিয়ে
তোমার পুষ্পযোনি থেকে।
আমি সেই মানস সরোবরে
পূণ্যস্নানের আদিম প্রতীক্ষায়
শবরীপাথর।

হে শীত, আমাকে অর্জুন করো।

  
এ ঘরে আজকাল আর ভ্রমর-টোমর আসেনা
শুধু ছাদপাখার আবর্তনগুনগুন
সঙ্গে ঘুঙুরনাচে দেয়ালক্যালেণ্ডার

কাজ ছিলোনা কিছু,
তাই কাল সারাদিন ধরে
ঘরের দরজা আর জানলায়
নীলরঙ লাগিয়েছি


আকাশ সমুদ্র বাতিঘর
পার্কস্ট্রীট চিলেকোঠা এসেমেস্
অনুবাদের পরেও অবিকল
আকাশ সমুদ্র বাতিঘর
পার্কস্ট্রীট চিলেকোঠা এসেমেস্

যতোবার অনুবাদ করতে চেয়েছি তোমাকে
কবিতার খাতা ভাসিয়ে দিয়েছে
এক পাগলিনদী

মাঝেমাঝে আমার সব জানলা দিয়ে
অকস্মাৎ অন্দরে ঢুকে
উজাড়ে ভাসিয়ে নিয়ে যায়,
ভেজা পোষাকের মধ্যে থেকে
জেগে ওঠে স্বচ্ছ শৈশব

সে কি নদী?
রবীন্দ্রনাথ?
নাকি তুমি, বাবা?

নইলে কাকভিজে চৌকাঠে দাঁড়িয়ে
হিমহিমে কাঁপতে কাঁপতেও
জিভ কেন মিষ্টিমিষ্টি লাগে?


প্রার্থনাগানের সুরে
যেই তুমি বলে ওঠো –
জাগো

অমনি মানুষ জাগে
সামনে দেখে ভূমধ্যসাগর


কষ্টিপাথরে যাচাই করছো বুঝি
ক’টা সমুদ্র কষ্ট ধরেছি বুকে
আমি সোচ্চারে বলিনি জনান্তিকে
ক’কোটি আলোকবর্ষ অপেক্ষাতে
কবিতানারীর হাতে শিলালিপি হবো


বন্ধ চোখে অন্ধকারে
প্রিয় মানুষ খুঁজি
হাত হাতড়ায় ব্যাকুল হয়ে
তৃষ্ণাটুকু পুঁজি
দৌড়ে বেড়ায় অচেনা পথ,
গোপন গলিঘুঁজি
অথচ তুমি আমার বুকে
শায়িত সোজাসুজি

3 মন্তব্য(গুলি):

prabashi mon বলেছেন...

Onek sobdher mane bujhi ni tobu bhalo laglo, aktu erotic moe holo tober sobder badhon bhalo legeche

Ashim Sen বলেছেন...

Amar moto 'anpoR' pathoker sob somoy hoyto kobir bhabnake chhNute para sambhob hoy na. tobu poRi....poRte poRtei ekdin bodhay bolte parbo..'bah! chmotkar...'- ei ashay......

PALASH KUMAR Pal বলেছেন...

valo laglo dada

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About