মৃন্ময়ী.......

আজ রাতে ঘুম হোক..!!
পুরোনো বন্দরে আছি।
জলের শরীর ছূঁয়ে সুমধুর ঘ্রান ভেসে আসে।
কে আসবে??
উজানের মাঝি তুমি পাল তুলে হেইয়ো লাগাও।

জাহাজ..!!
কত দূর দূরদেশে যাও।
কঠিন কাঠের শরীর, কত নদী মোহনার জল লেগে থাকে।
ঘাটে ঘাটে বন্দরে নোঙ্গড় লাগাও ঠিক তালে।
তুমি এই বন্দরের পরিযায়ী বঊ, শহুরে গনিকার মত।

আমাদের বাতাসে কাল উত্‍সব..!!
স্তনের বোঁটা চূঁইয়ে দুধ দেবে মেঘের রমনী।
কাঙ্খিত বৃষ্টিরা ছূঁয়ে যাবে পাতার কোমল।
অভিমান ছেড়েছূঁড়ে স্বেচ্ছায় ধরা দেবে রুপালী ইলিশ।

কে আসবে??
মুঠি মুঠি বিশ্বাস তার চাই।
উর্বর নেশাক্রান্ত চোখ, উষ্ণ বুকের ভাঁজে যতটা সবুজ জমে আছে।
ছূঁয়ে দিলে সে জমিন ইচ্ছায় ফলাবে ফসল।

ফুঁসে উঠুক গহীনের জল।
যদি ঝড় হয়, টাইফুন ডেকে যায় রাতে!
আমি আছি!
পাগলের মত ঝড় ছোঁব।
যদি মেঘ সামলাতে চলে যায় সাঁতারের ক্ষন।
অযাচিত দুটি হাত মৃন্ময়ী শরীর ছোঁবে না।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About