বসন্তের মৌপোকা

তোমার শৈল্পিক দেহ খুলে যেতে যেতে
বসন্ত বারবার ফিরে আসে,
তোমার লিপস্টিকে ঠোঁটে ফুটে ওঠে আমার অকাল বসন্ত।
সুরভী ভরে ওঠে, কখনও মৌপোকা ভালবাসা খুঁজে ফিরি,
তবু বসন্ত বলি--খোয়া ভালবাসা ফিরে পেতে
তোমার লালচে গাল আবার টোকা দিয়ে দেখি,
না হয় অকাল বসন্তদাগ লেগে থাক--
তোমার গালে আমার চুম্বন ছাপ।

অকাল বসন্ত

অকালেও ফুল ফোটে দেখো, বয়সের আগে মন পেকে যায়।
খুনসুটি একদিন কবে যে বাসা বাঁধে গোপন গহনে
জেগে উঠে দেখি ঠিক পাশটিতে আছো তুমি,
তুমি ছুঁয়ে দিলে দেখি, খরার ঝরা পাতা নেই !
নগ্ন গাছের গায়ে হরিত তারুণ্য লেগে থাকে,

আবার কখনও তুমি এক নির্জনতায় ডুবে থাক
সূর্য ঢলে পড়ে জানালায়,
সমস্তকিছু বুঝি গোধূলি রঙে রেঙে যায়--
তুমি চেয়ে থাকো, আমি নিষ্পলক, আমাতে তোমাতে।
হঠাৎ ঝাঁপিয়ে পড়া শ্রাবণ আসে, ঝাউবন তোলপাড়  কেঁপে ওঠে।


1 মন্তব্য(গুলি):

মিজান ভূইয়া বলেছেন...

ভীষন ভাল লিখেছেন কবি..…।চমৎকার অনুভুতি..……শুভ কামনা জানিয়ে যাই আপনাকে..…।দুইটি কবিতা পড়ে মন ভরে গেল মুগ্ধতায়..…।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About