কিংবদন্তী পুনঃনির্মাণ

আমাদের একজন পিতার প্রয়োজন
শুরু হলো খনন এবং আমরা আবিস্কার করলাম
পিতা, তার পিতা, তার পিতা, তার পিতা
এবং শেষটায় আদিপিতা।
কান টানলে মাথা আসে, পেয়ে যাই আদিমাতাকে
সৌভাগ্য আমাদের তিনি আদিতম নন
প্রাচীনতম শিশ্নের অধিকারী পিতা থেকেই জারিত তিনি -
শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হতে লাগলো আকাশ বাতাস
"
জয়, পুরুষ কী জয়, জয় পুরুষ কী জয়!"
অতঃপর আমরা উর্ধ্বলোকে দৃষ্টিপাত করলাম
আমাদের প্রয়োজন অলীক গোরখোদকের
যিনি দিনশেষে আমাদের কবর দেবেন এবং
যার ইশারায় কোন এক মাঙ্গলিক ভোরে
আবারো জিন্দা হয়ে আমরা ডুগডুগি বাজাবো।
আমাদের দৃষ্টিগোচর হলেন তিনি
অতিকায় এক শূন্য পিড়িতে বসে হুকো টানছেন -
শূন্যকে ভয় পাই বলেই আমরা তার বাম হাতে ধরিয়ে দিলাম সূচালো ত্রিশুল
এবং ডান হাতে দিলাম রেফারীর বাঁশী -
এরপর শূন্যকে আমরা স্ব স্ব গোষ্ঠিমাফিক নামকরণ করলাম
সবশেষে মহান তিনি তন্দ্রায় গেলেন -
এখনো গভীর তন্দ্রায়।

কবিতা ইদানিং

জীবন ফাল দিয়া যায়
ইয়ার্কি ইয়ার্কিতে শব্দ রোপন
ঝলক মারে কবিতার মুখ
দূর্মুখেরা করুক ব্যবচ্ছেদ
পরোয়া কে করে!
এপিটাফে গোপন ফিসফিস
কবিতা শুয়ে আছে


1 মন্তব্য(গুলি):

Surajit Chakraborty বলেছেন...

আদিপিতা...... এখনো গভীর তন্দ্রায়।
অসাধারন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About