ক্রোধ

ক্যালেন্ডারের শেষ পাতার মৃত্যুও বৈধ ঘোষিত  
নিজের ছায়ার পাশে নিজেরই হাতে হাত
  
বসে থাকি একা
      ছুটি ফুরিয়ে এলো, অথচ একটা শব্দও
যথার্থ
  কবিতা হয়ে উঠলো না সমীরণ !
দুচার দানা মৃতশব্দ প্রসবের পর
নিজের পাশ থেকে নিজেকেও
  উঠে যেতে হয়.. 
     সাফল্যের গল্পে যৌনতার দৃশ্যপট  গসিপ ছড়ায়
ঘেন্নাঘেন্না মুখে কেউ সরিয়ে রাখে
কবিতায় ছড়িয়ে থাকা স্তন যোনি ঋতু রজ:
আরো কয়েকটা বিকেল,আরো কিছু
  মুখ
পাশ থেকে উঠে যায়
শুধু ঠিক সেই মুহূর্তেই প্রবল 'নারী' হয়ে উঠি
    ঋতুকালীন অস্পষ্ট শীত
উরুদুটি
  ভিজে যায় গোপন রক্তোচ্ছ্বাসে
  মাথার ভিতর  আগুন জ্বলে 
শরীর ফুঁড়ে বেরিয়ে আসতে চায় শ্বদন্ত
     তুমিতো জানো আমার গল্পে কোন নারীজন্ম নেই!
এবার কি সবকিছু
  ছিঁড়েখুঁড়ে তছনছ করে দেবো সমীরণ !


1 মন্তব্য(গুলি):

মিজান ভূইয়া বলেছেন...

অনেক ভাল লাগল কবিতাটি। শুভ কামনা কবিকে। লেখার ধরণ চমৎকার..…মুগ্ধ হয়েছি খুব..…।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About