অন্ন ব্রহ্ম

অর্ধেক আলো ,আর আধ খানা
কালো নিয়ে আমি বৃত্ত ।
ফটিক জলের গভীরে আঁধার
আলোছায়া সম্পৃক্ত ।

খোঁজাখুঁজি আর ভুল বোঝাবুঝি
শক্তি ফুলকি ; ওড়ে ছাই
কেউ ডুব দেয়গেম’-এর গভীরে
কেউ ঘটিবাটি খেলে যাই।

ভুলভুলাইয়া টোপরের টোপ ,
আলতা রক্তে মাখা দাগ ।
কেউ খোঁজে তার ঘরের ঠিকানা ;
কারো মনে ওড়ে রাঙা ফাগ।

সাদা কালো ছবি, সুখী গৃহ কোন
ছোট বেলা ডাকেআয় রে”—
আরও ছোট কেউ হাত ধরে টানে
বড় হওয়া ভেসে যায় রে ।

ফুটপাতে শুয়ে ধুলোর গোপাল
ছেঁড়া ন্যাকড়ায়ে বাঁধা ঘর।
পাশে মোটরের ছোট্ট আয়না
মুখ দ্যাখে তাতে কচি বর।

থামেনা জীবন ।মায়াবী হরিণ
সোনার স্বপ্নে মায়াজাল।
হাসপাতালের গালি খাওয়া শিশু
বাবা-মার কাছে জঞ্জাল।

সেও তো জীবনদামি নয় কেন ?
কারন সে উদ্বৃত্ত ।
ভাতের হাঁড়িতে উনুনের ধোঁয়া
তা্রই চারপাশে বৃত্ত।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About