কবিতার মাষ্টারদা আর গানের হারমোনিয়মওয়ালা

সেতু কী দোলে স্মৃতির ভরসায়
বিশ্বাসের কাঁধে ভর করে কী
নির্বাণ সেতু অখন্ড গড়ে ওঠে !
কোথায় হারায় পথ দূরন্ত অসহায়
বিষফল খেয়ে ঘুমালে সংসার তলায়
স্বপ্নবাঁশী কী বেজে ওঠে !
সংসার চলে যেমন
কথার পুরানো জাহাজ নির্বিকার ভাসে না
স্বজনবিহীন পথ আছে
ঘুনধরা অসংখ্য বন্ধু-তালিকা হাসে না !

খবর আসে মাষ্টারদা কবি তুষার মারা গেছে
হারমোনিয়মওয়ালা বন্ধুর মত ফোন করে
আবার স্মৃতির স্থিতি ভাঙা চোরা
সেতুর ওপর টলোমলো কথা
অনেকদিনের পর কিছু গোপন ব্যথা
হারমোনিয়মওয়ালা আর টপ্পা বাজায় না
আহা তোমার সঙ্গে প্রানের খেলা প্রিয় আমার ওগো প্রিয়

ডিমডিমা চাবাগান নেচে ওঠে সে গানে
হারমোনিয়মওয়ালার হাতের গুণে সে সুর জড়িয়ে ধরে
মাষ্টারদা তুষারের শেষ মুহুর্ত্তে পাল্টানো
অনিরুদ্ধ প্রিথিউসনজরুল স্মৃতি নাট্য সংলাপে ৷

বীরপাড়া ড্যানক্যান চাবাগানে পাতাগুলো নড়ে চড়ে ওঠে
অনেক রাতে ভরা জোছনায় যেন কাঁদে অর্ধ যামিনী ৷
পোকা মাকড়ও জানে এ কবি শত্রু নয় ৷ বন্ধুত্ব মানে
কিছু স্বনামবিহীন নামের তালিকা নয় এ এক
স্বপ্ন দেখা বাঁশির সাতটি সুর
একে অন্যের আঙুল দূরত্বে থাকে ...

ফুঁ দিলে বাজে থামালে নির্বাক কাঁদে

বিশ্ব চরাচর পড়ে থাকে এই মায়া ফাঁদে ৷

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About