অনর্থ

দূরে সরে যাই- দূরে সরে যাই-
কবিতার মেরু থেকে।
পালিয়ে বেড়াই- কি রোগ বালাই-
পথ যায় বুঝি বেঁকে।

শাণিত ফলক- শোণিত ঝলক-
কোথায় কাব্য থাকে!
অসুখের সেই নিশিডাকা ঝোঁক,
আমি পড়ে যাই ফাঁকে।

কবিতা ত নয় পুরুষ মানুষ-
আমিও যে নই নারী!
হিসেব রাখিনা কার গুণদোষ-
বেড়ে চলে আড়াআড়ি।

কবিতা, তুমি যে জড়পদার্থ-
আমিও কতক তাই!
দূরে সরে গেলে- ঘটে অনর্থ-
তবুও যে সরে যাই।

দূরে সরে যাই- তবুও টেনে যায়-
আমাকে অমোঘ টানে।
জবাবদিহির নেই কোনও দায়-
বোঝাবো না এর মানে। 

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About