শুভ নববর্ষ

প্রিয় ধ্রব,
তোমার জন্য কি নিয়ে যাব ??
কমলালয়ের
ক্যালেনডার??
বাংলা লেখা বারোমাসের
তেরো পার্বণ
- নমস্কার
দেয়ালে তার দোল খাওয়ার - খর শব্দে পরিষ্কার
নতুন সময় আসছে ঘরে খুব বেশী নেই দেরি আর ।
কি নিয়ে যাবো ? কি নিয়ে যাব ?
পকেট ভর্তি আমের বোল ??
মাটির ভাঁড়ে ছলকে ওঠা তমলু্কের দইয়ের ঘোল ?
কাঁচা লিচু,কাঁচা কাজু আজো কি আর পুড়িয়ে খাও ?
ধর্মঠাকুর থানে কি আর অনার্য ঘোড়া দেখতে যাও ?
বাগদি, হাড়ি ডোমের ঘরে রাত কাটানোর গল্প চাই?
কি নিয়ে যাবো ? ভাদু টুসুর চৌডালা - কাঁসাই ভাসাই
নিতে পারি - ঝুমুর চটকা ভাওয়াই গানের মেলার টান
পোড়া-মাটির দেশের সেই গয়না-বড়ির নকশি ঘ্রাণ
রাত টহলিয়া ডিঙি চাঁদে চরকা বুড়ির চরকি চাই ?
গাজন মেলায় এফোঁড় ওফোঁড় জিভের ভেতর ছুঁচ ঢোকাই
বাক-স্বাধীনতা চৈত্র সেলেও বিকছে না আর - সবার ভয় ?
বলতো এবার রণপা-আনি - দক্ষিণরায় কে করবে জয় ?
আনতে পারি ভর দুপুরের ঘুঘুর ডাকে কাকের রাগ
চড়কি, বাঁশী, ফেরিওলা প্রানা কাগজ বিকেরঝাগ ।
আচ্ছা তবে কাটোয়া থেকে কাঠের পুতুল নিয়ে যাই
বর্ধমানের সীতাভোগে ও পুতুল নাচের গন্ধ পাই ।
ক্ষীরপাই এর বাবরশা - বল যদি আনতে পারি
চাকভাঙা স্বাদ গড়িয়ে যাক থুতনি কাঁটা অল্প দাঁড়ি
ভাদু কেন মরে ছিল আবার কেন জানতে চাও ?
অনাথ মেয়ে - রাজার আদেশ - প্রেমিক জেলে শুনতে পাও?
মরলে ডুবে টুসুও পরব - কে জানে তার উপাখ্যান
আনবো আমি গলায় করে মুছে যাওয়া ভাদু্র গান ।
লাল মাটি-টা উড়িয়ে নেবো
চোখের বালিবলবে না?
ডুলুং নদীর বুকের ভেতর কনকদুর্গা কাঁদবে না?
পটল ক্ষেতে ঢুকছি আমি পলতা পাতা তোমার চাই ?
মেয়ে বলে প্রবেশ নিষেধ ? কাঁটতাঁরটা ভাঙছি তাই ।
আর কি নেবো ? আর কি নেবো ?
জর্জ বিশ্বাস - গানের ভেদ ?
ব্রাত্যজনের রক্ত শিরায় স্বরলিপি ভাঙ্গার জেদ
বল যদি ধরতে পারি বনবিবির ও ছদ্মবেশ
মউলিরা আজ জীবনমুখি মধুর খোঁজে নিরুদ্দেশ ।
নির্মলেন্দুর ভাটিয়ালি – ‘মাইক মুইক লাগবো না
আনুম নাকি হত্য কইরা কইয়া দাও আর প্যাখনা না
গোপগড় না আরাবারি ?
শিতলপাটি - কুঁজোর জল
মল্ল-ভূমের শৃগাল কন্যা অমলা কমলা দল-মাদল
ছউ নাচের মুখোশ নেবে?
কি সাজবে মুণ্ডুপাত ?
দশাবতার তাসের দেশে অবতারের কিস্তিমাত
গঞ্জিফা তাস বানিয়ে দেবে আজো আছে গড়ার লোক
নতুন করে খেলে দ্যাখো, উলটে যাবে পাশার ছক
কাঠের পেঁচার হস্ত শিল্প - রাত পেঁচার কই ভুতুম হাঁক ?
বালি খুড়ে মীন ধরছি, পিছাবনি পিছিয়ে যাক
বল যদি বুনতে পারি মৎস্য ধরার খ্যাপলা জাল
চিল্কিগড়ে - রাঘব বোয়াল- ডুলুং জলে দিচ্ছে ফাল
এতো কিছু আনতে পারি তবু তোমার চোখ হতাশ
ঝর্না কলম এনে দেবো
কীবোর্ডে কি শান্তি পাস ?
কি বললে কলম ভোঁতা ? গুঁতোর ঠ্যালায় বন্ধ চাষ ?
এক-কলম স্বাধীনতা তাতেও হল সর্বনাশ ?
খাগের কলম মনে পড়ে ? দোয়াত ভরা দুধ আর দই
পোস্ট কার্ড এ সেই চিঠি-লেখা
সুলেখা কালি এখন কই ।
আচ্ছা তবে আসছি আমি দরজা খোলো এইবেলা
কালবোশেখি ঘূর্ণি হয়ে নাম পদবি গোত্র ধুয়ে
লিখবো আমি লিখবে তুমি
এই পৃথিবী আমার দেশ
স্বাধীনতা হয় কখনো বিজ্ঞাপনে নিরুদ্দেশ ?
তার চেয়ে বরং ফিরিয়ে আনি পাড়ায় পাড়ায় বাঁশ বাঁধা
মঞ্চে ফিরুক মশাল নাটক ফাটক ভেঙ্গে গোলকধাঁধা
আসব আমি তোমার কাছে সংগে নিয়ে চক-খড়ি
ইদুর ছানা ভয়ে মরে’ ---- পড়িয়ো না আর থোড়-বড়ি
ঈগল পাখি পাছে ধরে’ ---- অনেক হল ভয় পাওয়া
নববর্ষের নতুন স্লোগান - সাহস করে পথ-বাওয়া ।
ইতি
ঘূর্ণি-------


0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About