আমি শয়তানের প্রেমিকা

এই যে নীচু হয়ে ঝুঁকে থাকা
জানি পরিপ্রেক্ষিত খাদ অতল ভীষণ
তবু রক্ত, মাংসল পা তুমি গর্ভবতী হও।
আমি তো শাপলা ভেবে ক্রমশ গলায় জড়িয়েছি পদ্মনাগ
তুমিও কিছু বিষণ্ণ মরসুমি ফুল ভুল করে তুলে নাও অন্তত
তারপর...
এখানে দাঁড়াও
এইখানে নরম রোদের নীচে পরিচিত পাহাড়ি সাঁকোর শেষে।
আর পনেরো মিনিট পর এইখানে নামবেন ঈশ্বর।

ঈশ্বর ধবল কিছু স্বপ্ন
ঈশ্বর মেয়েটির মায়াবী চিবুক
ঈশ্বর আমার সুদর্শন সহযাত্রী
ঈশ্বর জমাটি রিফ্রেশমেন্ট।
মোটের ওপর এই উন্মত্ত উঁচু-নিচু নীল ঈশ্বর নন;
তিনি যৌন করের বোঝায় আপাতত ক্লান্ত আদম।

যে পুরুষটি অবয়বহীন তাকে আমি কাল্পনিক ঈশ্বর ভেবে মুলতঃ শান্তিতে পেচ্ছাপ করি।
কবরের মত ঘুমের কামনা নিয়ে করিডোরের সবকটা আলো নেভাই
তারপর ঈশ্বর আসেন, রমন করেন অপক্ব কিশোরী  শরীর
নীচু জমি গর্ভবতী হয়।

আবার নান্দনিকতায় ফিরি
শুনি ঈশ্বরের স্খলন হয়না কখনও
বুঝি তুখড় বীর্য শুধু নষ্ট পুরুষের আয়ত্তাধীন।
ঘুম আসে, করিডোর শান্ত করা ঘুম

শিশিরে লুটিয়ে পড়ে শয়তানের একান্ত প্রেমিকা।


1 মন্তব্য(গুলি):

Soumitra Chakraborty বলেছেন...

বাঃ! চমৎকার লিখেছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About