শীতলপাটির ঘুম
                                         
চুলের গোড়া থেকে উৎপন্ন যে নদীটি মুখের পাশ দিয়ে নেমে গেছে
সেই নদীটি বড়ো শান্ত ঠান্ডা তার জল
আমি তার নাম দিয়েছি শীতলপাটি
আগুন নিভিয়ে সন্ধ্যা নেমে আসে যখন জলবুকে
পাঁজরে ধাক্কা দেয় ছলাৎছল উড়ুক্কু মাছ
বইয়ের মধ্য থেকে বাঁশরীর ধুন উড়ে যায় আটচালা চন্ডীমন্ডপে!
দুঃখবাটীর মানত বেঁধে দেয় বিশ্বাসের গর্ভে ইঁটের দুভাগ টুকরোয়
বিড়বিড় করে আকাশকে ডেকে তোলে" আমি বাঁচতে চাই"!?
নদী আরও শীতল হয়ে যায়...
আরও কতোটা শীতল হলে এই উজান  হিমবাহে আটকে যাবে ,
এমন শব্দের খোঁজ দিতে পারো কমন্ডুলের পিতা!
আমি শীতলপাটির মতো শান্ত দেখতে চাই আমার মাকে
আমার একটু ঘুম চাই,অনেকদিন ঘুমোয়নি মাএর বুকে...
                                                  




0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About