স্মরণগাথা


স্মরণে এলে তুমি
স্মৃতিরা এসে ভিড় করে
প্রবল জলোচ্ছাসের মত -
মননে চেতনে এ এক পুণ্যার্জন
তোমাকে তোমারই নামে চিনে -
নাম থেকে নামান্তরে স্মরে।
ধুমকেতু তুমি,
আকাশে নয় -মাটির বুকেতে গর্জন।

লেখনী তোমার অগ্নিবীণা -
নিশ্বাসে বিপ্লবী বিশ্বাস,
বলেছিলে – ‘হাতের ধুমকেতু হবে
ভগবানের হাতে অগ্নি-মশাল;
যত অত্যাচার দগ্ধ হয়ে
একদিন হবে ঠিক সত্য প্রকাশ।
তরুণের মাঝে বীজমন্ত্র বপন করে দেখালে
তোমার সে অগাধ আস্থা বেমিশাল।

আজ ধর্মে ধর্মে অনাস্থা এত,
হানাহানি, স্বার্থের চোরাবালি -
আজ খালি ক্লান্ত অন্তর চায়
এক সমন্বয়। মানুষে মানুষে সেই হেতু,
বড় প্রয়োজন এক মানবতা সেতু

তুমি ভেঙ্গেছিলে
যত ধর্ম শিকল, অত্যাচারী কারাগারে
লৌহ কপাট। আজ এতদিন পরে
মনে পড়ে বারে বারে তাই
সাচ্চা সে মানুষের নামকাজী নজরুল ইসলাম
প্রতিবাদী ভাষার হে দ্ব্যর্থহীন সৈনিক
জন্মতিথি ক্ষণে আমার দৃপ্ত সালাম।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About