ঈশ্বর কণা

প্রত্যেকটি বাঁকে বাঁকে এক একটি মৃত্যু অপেক্ষা করে সুপুরুষ
ধনুক হাতে,অমৃত যাত্রী..
পরিয়ে দি জয়মাল্যর চিহ্ন
এগিয়ে এসে,
হেসে ওঠে উপত্যকার যক্ষ,বিজয় নিশান উড়িয়ে দেয় ,
বুকে বিঁধে যায় দন্ডের শলাকা,উপচে পড়ে সাদা ঝরণা,
এক একটি পাথরে লেখা থাকে মৃত্যুর ইতিহাস...

 আরও এগিয়ে যাই খুলে পড়ে মাংস,আরও অনেক কিছু...
তাদের যত্ন করে সেলাই করে নিই,রিপুতে লেগে থাকে
রক্তের অশূদাগ,আরও অনেক কিছু...
তাদের খাইয়ে দিই মাতৃরস,শৈশবে ফিরে যায়...

 আরও এগিয়ে যাই আমি ঈশ্বর কণা,
আমিই সেই মৃত্যুদূত,
অমৃত ভান্ড নিয়ে শ্মশানে জেগে থাকি বরাভয়ের মুদ্রা হাতে,
প্রত্যেকটি চিতায় জীবনের ইতিহাস লিখবো বলে...








0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About