ভোরের শিশিরে একা

এতো মানুষজন তবুও ঘর ফাঁকা- কারা যেন জেলে ডিঙ্গি নিয়ে
ভাসতে ভাসতে চলে গেছে- অহংয়ের নৌকো নিয়ে চলে গেছে
ভেসে; আমার সঙ্গে থাকে না কেউ- ভেসে যায় বিষণ্ন মায়ায়।


ইতস্তত দিকভোলা মরশুমি বাগান, আলগা টবের মাটি ঝেঁপে
আসে ফুল- রঙ্গিলা সে মায়া স্থির অমাবস্যায় নজরে আসে
না নদী, আমার শরীর যেন দাঁড়ের ছলাতে কেঁপে কেঁপে ওঠে।


ঝড়ে ভাঙ্গে প্রাচীন টাওয়ার- ওখানে উঠে হাতি দেখেছি বহুবার;
চোখের পাতায় শ্লথ হাত রেখে এসেছে নিবিড় ঘুম, আমি
পলায়নপর বুঝিনি কিছুই বারবার হেরে গেছি বিস্মিত চোখে।


দুহাত বাড়িয়ে ডেকেছে আর্তনাদ- আমি কি হেরে গেছি?
বারবার জেলে ডিঙ্গি নিয়ে কেন ভেসে গেছে মানুষ আমাকে
ছেড়ে? ভোরের শিশিরে একা ভিজেছে পায়ের পাতা।


1 মন্তব্য(গুলি):

Kausik Chakraborty বলেছেন...

অপূর্ব

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About