অনিকেত

অর্থহীন তোমার কবিতার পান্ডুলিপি
 আজ ছাই হয়ে বাতাসে ভাসে
অভিযোগের তীর ছুঁড়ে যতই বিদ্ধ করি
তোমার তাতে কিই বা যায় আসে ।
চাপিয়ে দেওয়া দাবী দাওয়ার বোঝা
কি দায় তোমার , দিতে কৈফিয়ত
মফস্বলের শহরতলির ফেলে আসা জীবন
ত্রস্ত হাতে সংগোপনে ঢাকছো বুঝি ক্ষত !
বড্ড বেশী আগুন চোখে মিছিল হাঁটতে তুমি
এখনো কি আগুন জ্বলে চোখে ?
মধ্যযুগের পথেই নাকি আবার গেছ ফিরে
শ্বাপদ চোখের আগুন এখন , সাধ্য কার রোখে !
তোমাকে আমন্ত্রন জানাই একবার চলে এস
ঘুরে যাও এই সন্ত্রাস কবলিত হৃদয়ে
ছবির মত ঘটনা বহুল সমাজে ,দেখে যাও
মধ্যযুগের বর্বরতা মানুষ আজও চলে বয়ে ।

আলোর দিকে .......
প্রত্যেকটি মানুষের বুকের
ভিতর একটি করে বিপন্ন
অঞ্চল তৈরী হয়েছে ,যার
গভীর দীর্ঘশ্বাস যেন যন্ত্রনার
মহাকাব্য লিখে যায় হৃদয়ে
অকালসন্ধ্যায় ।
মৌন পাহাড়ের একাকীত্ব
নিয়ে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া
মানুষেরা আর দল বেঁধে
যায় না মিছিলে , সকল
আলোর উৎস থেকে ঝরে
কেবলই আঁধার ।
আজও আমার স্বপ্নেরা খোঁজে
মরমী আকাশে থাকা নক্ষত্রের
ঝাঁক। মানুষের বিচ্ছিন্নতা যাক
চিরতরে যাক , সম্পর্কের
স্বর্ণখনি বুকে ভরে হাঁটি,এস
রক্তাক্ত নগরে ।



3 মন্তব্য(গুলি):

Sofil Ahamad বলেছেন...

ভাল লাগলো

PALASH KUMAR Pal বলেছেন...

ভালো

Binata Roychoudhury বলেছেন...

Khub bhalo laglo..

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About