ভোজ

একটা মানুষ আগুন জ্বেলে রান্না করে।
সেই আগুনে উথলে পরে চড়ুইভাতি।
একটু পরে উচ্ছিষ্টের গন্ধ শুঁকে
যৌন-ক্ষুধায় ভিড় করে সব মৌন-সাথি।

প্যামফ্লেটে ঐ ক্ষতের ছবি কে লিখেছে?
কে বলেছে জ্বালতে পোড়া বুকের আগুন?
কে বলেছে চড়ুইভাতি রাতেই হবে?
কে বলেছে অন্ধকারেই রাত্রি জাগুন?

আসুন, নাহয় চু-কিত কিতখেলতে থাকি!
চোখ খুললেই মরণ-ঝাঁপি খুলতে হবে!
কিংবা যদি চিনেই ফেলেন শরীর ছুঁয়ে,
বলতে হবে, প্রথম ছোঁয়া ছুলেন কবে?

একটা মানুষ মুখ বুজে আজ আগুন পোষে,
সেই আগুনে পুড়ছে যে তার পাকস্থলি,
আগুন ঘিরে নপুংষকের ঝড়ছে লালা,
বন্ধ্যা চাঁদের আলোয় ডোবে অন্ধ-গলি।।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About