কোণারকের কালো পাথরে...


তোর জন্য বালিয়াড়ি থেকে
কুড়িয়ে এনেছি একমুঠো ঝিনুক,
শামুকের পেঁচিয়ে ধরা সূচের মত শরীর...
মৈত্রেয়বনে সূর্যের প্রথম আলো
তীরের মত ছুটে আসত
কোণারকের কালো পাথরে,
সেসব ইতিকথা হলুদ শঙ্খ আর সাগরের
কানে-কানে বলা আছে...


সিনেমার নীল অন্ধকারে
আঙুলে আঙুল মিশে গেলে,
হালকা ভেপারের হলুদ আলোয়
প্রথম প্রেমিকাকে মনে করে
তোর চোখে জল আসছে...
আমার অনামিকার লাল পাথরটাও
নোনা হয়ে যাচ্ছে
কবেকার 'তোমাকে' মনে করে...
রাতের শেষ মেট্রো আমাকে ফাঁকা ষ্টেশনে
একা নামিয়ে চলে যাচ্ছে...
তোকে যেতে হবে বহুদূর ...
আমি হাত রাখি...তুইও নোনা হাত রাখছিস আঙুলের ছায়ারা মিলে যায়
বন্ধ দরজার ওপারে,
আমাদের মাঝখান জুড়ে কাঁচের দেওয়াল...


শেষরাত কাটাকুটি খেলে
ভিজতে থাকা নিয়ন আলো
আর ট্রেনলাইনের জমাজল,
চিক্চিক্জ্বলছে....

সেরাতে সূর্যের সব আলো তীরের মত
ছুটে এসেছিল কোনারকের মৃত পাথরের
বালিশের কাছে...

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About