একটি মৃত্যু কাহিনী

কবিতার খাতায় লোকটির মৃত্যু লিখলো মেয়েটি
তারপর পৃষ্ঠা ছিঁড়ে নিয়ে
জানলায়- উড়িয়ে দিল হাওয়ায় ।
ছেঁড়া সেই টুকরোগুলো উড়তে উড়তে
ছড়িয়ে গেল কোথায় কোথায়
লিখে রাখলো রাত্রির কালো অন্ধকার ।
শুনবেন না তারপর কী হলো লোকটার ?
অন্ধকারে হাতড়ে হাতড়ে
কাগজের টুকরোগুলো কুড়োলো সে-
আঁঠা দিয়ে জুড়লো উন্মাদের মতো
একে একে উবু হয়ে বসে ।
তারপর কান্নার জলে কলমের নিব চুবিয়ে নিয়ে
লিখলো সেখানেই
আমাদের মিথ্যে ভালোবাসার জন্মদিন তো সামনেই-
এসময় আমার মৃত্যু লিখলে তুমি সোনা !
কাগজে মাথা রেখেই লোকটা ঘুমিয়ে পড়ল তারপর-
সকাল এসে ঠ্যালা মারলো গায়ে
লোকটা আর জাগলো না ।
লোকটা মেয়েটির কাছে ঘুম চাইতো রোজ-

লোকটা ঘুমিয়ে পড়েছে

তার মাথার নীচে মেয়েটির মৃত্যু লেখা কাগজ ।

5 মন্তব্য(গুলি):

Binata Roychoudhury বলেছেন...

Osadharon hoeyche Dada..

Arup Paul বলেছেন...

অসাধারণ।। চোখে জল এলো।।

Arup Paul বলেছেন...
এই মন্তব্যটি লেখক দ্বারা সরানো হয়েছে।
অভিজিৎ দাস বলেছেন...

ভালো লাগলো ।

Sofil Ahamad বলেছেন...

ভাল হয়েছে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About