নতজানু সত্তা

অনন্তকাল শুকনো বাঁশপাতার মত
কাঁপে মনের এলোমেলো চিন্তাগুলো,
যে ভাবনাগুলো কেউ যেন গুঁড়িয়ে
পায়ে দলে গিয়েছিল আদিম ইচ্ছেয়,
কেন জানিনা তারা আবার ফিরে এল |
সুদূরপ্রসারী দুটি ধ্যানস্থ চোখ নতজানু,
স্তব্ধতা ছুঁয়ে যায় রাতের সহস্র তারা |
তুমি কি এলে? মায়া না কি স্বপ্নছায়া ?
শত শত ঢেউ আছড়ে পড়ে সমুদ্রতটে
তুমি কি করে একটি ঝিনুকই কুড়োলে?
তোমার ইচ্ছেগুলোকে মুঠোয় রেখে
আমি একা হেঁটে যাব সামাজিক পথ
তবু আঁচড় লাগতে দেব না তার গায়ে
যে দ্বিখন্ডিত সত্তাকে সযত্নে জুড়ে দেয় ||




অনিন্দিতা সেন

ভালবেসো


গোপন আমার অভিসার
থাক না তোলা হৃদয় জুড়ে,
ঘুঙুর পায়ে নৃত্যপরা
বৃষ্টি ভেজা ঐকতানে,
মেঘের গায়ে মেঘ জমে জমে
উছলে পড়ে আলো,
সেইই তো বাজায় প্রেমের বিষাণ
লুকিয়ে পড়ে কালো,
স্রোতস্বিনীর বেগে বেগে
সুর মেলানো যন্ত্রণা....
বান ডেকে যায় অভিমানের
ঢেউ তুলে তুলে সুরঙ্গমা,
আগল খুলে হৃদ মাঝারে

তখন.... বেসো..... ভালো।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About