রূপান্তর

অতঃপর লাভা নিঃসরণ বন্ধ করল
আগ্নেয়গিরি,
বিক্ষিপ্ত পড়ে থাকা ছাই
শরীর জুড়ে টাটকা
ধ্বংসাত্মক চিহ্ন ।

চিরকাল অবচেতনে বয়ে চলা
ভয়,বিলুপ্তি !!!

আজ হঠাৎ আড়াল থেকে বেরিয়ে
অমোঘ সত্য
হাত রাখল আমার অস্তিত্বে।

শরীর যেন উত্তাল সমুদ্র,
স্পর্ধা টানে গভীর থেকে গভীরে
আমার একলা অভিযান

জন্ম মানেই একটা রচিত
একটা মৃত্যুর কাহিনী
ভালোবাসা রূপান্তরকামী গল্প...


পবিত্রতা


হাত ধরে টেনে নিয়ে গেলে
নদীর কাছাকাছি,
মাটি কাদাজল মেখে
রচিত হল ব্যক্তিগত বৃত্ত
চারিদিক আচ্ছন্ন ঘন কুয়াশায়
অপরিসীম নির্জনতা
আজ নিজেকে অপ্সরী মনে হচ্ছে
তুমি কোন কামুক যোগী
যাঁর ধ্যান ভাঙাতে আমার জন্ম
ফিরে আসি বারবার

আজ ডুব দিই নীল জলে
গভীর থেকে পৌঁছে যাই আরও গভীরে
জলজ প্রাণীর মতোই পোশাকহীন
দুটি দেহ দুটি আত্মা
শরীর থেকে ক্রমে ধুয়ে যাক
মলিনতা  ক্লেদ, গ্লানি
থেকে যাক মিলনের গন্ধ
চোখের পাতায় লেগে থাকুক
সুক্ষ্ম জলকনার পবিত্রতা
নিরব প্রশান্তি........


0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About