সহায়

সহায়, তুমি সূত্রধর
যখন তুমি এক চেনালে দুই চেনালে
সর্ব ঘটে  ছক্কা পুটে
খেই হারালে  খেই ধরালে
সহায় আমার ,ছায়ার ঘরে রাখলে যখন
রোদ বোঝালে সময় করে
ঝড়বাদলে লুটিয়ে পড়ে পতন চিনি
শুশ্রুষাটি চিনবো বলে
একটু তুলে ঝাড়বে ধুলো ?
স্নান করিও
আঝোর ধারে বর্ষাদিনে শ্রাবণ জলে
স্নান করিও
কিংবা যদি যাই ভেসে যাই
বন্যা এলে একটু আমায় সাঁতার দিও
হাঁটু জলের দিন গুলোতে
একলা না হয় সামলে নেবো
তোমার তোএই উনকোটির এ সংসারে
কম জ্বালা নয় !
ডাকের তুমি খোঁজের তুমি
দুর্যোগেতে যোগগুরু আর
আলোর দিনে
তুমিই বলো খোঁজ রেখেছে কেইবা কার
চিরকালীন বসন্তদিন
যদিই পারো বইয়ে দিতে
পারতে তুমি পারতে তুমি
অনন্ত কাল ঘুমিয়ে নিতে
যা হোকগে যাক
তোমার বাঁশি তোমার ফুঁয়ে
আমার কী আর বলার আছে
ঝড়বাদলের সে রৌরবে
শরণ, থেকো ছত্রকথায়
জোড়াতালির রিপুর গল্পে
মধুর তোমার শব্দ এঁকো
চরণপাতের শব্দ এঁকো
ভিখারিণীর ছেঁড়া কাঁথায়

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About