বৈশাখী চক্রবর্তী

 বোধ


 দাহ্য শোকের দেহে লেগে থাকা উন্মুখ উত্তাপ
ক্রমশ ঠেলে দিচ্ছে খননকার্যের দিকে।
একেক সময় ঘুম থেকে জেগে উঠেও মনে হয়
‘সত্যিই জেগেছি কী?’
অবাক হয়ে দেখি উজ্জ্বল আলোর গায়েও আজকাল রক্তাল্পতা লেগে থাকে
লেগে থাকে
 শরীরময় দুরত্বের দুরপনেয় আশরফী,
আংশিক গ্রহণের মত বিহ্বল সহবাস।
অকাতর ছড়ানো প্রহর গভীর হয়ে আসে,
নির্জনে
তুমি আসো
আসে শেষ বিকেলের শেষতম ফেরার ডাক
বিষন্ন চোখে জমে ওঠে ব্যক্তিগত পরিক্রমণের করুণ শ্যাওলা দীর্ঘ স্থবিরতার
 মত
যাবার বেলায়
বিশ্বাসযোগ্য তীর্থজল কোষা ভরে
প্রণাম রেখে যায় সম্ভাব্য ঠুঁটো ঈশ্বরের দিকে
স্তব্ধতা বুঝিয়ে দেয় শূন্যতার বেশি অন্ধকার হারিয়ে ফেলা যায় না, কিছুতেই না।

 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন