কাকলি ভট্টাচার্য

 রূপ-কথা আসছে




ঘাসের কাছে নদীর কাছে দারুচিনি দ্বীপের কাছে
পৌঁছে যাবো এক বিকেলে সঙ্গী শুধু মেঘদূতেরা শব্দমাখা কারুকাজের বাসর হবে ওই আকাশে
একশো রঙের রামধনু আজ প্রহর গোনার পালা
আসবে কখন কাব্য - কথার দৃপ্ত রূপের পরী
জাদুকাঠির স্পর্শ পেয়ে উঠবে জেগে, প্রবল বেগে
মায়াশব্দের ঝনঝনানি...
যুদ্ধে তখন সোঁদা গন্ধে বৃষ্টি আকুল মাটিরা সব
ঝড়ের মত , বাজে'র মত, বলতে থাকে ,
বলতে বলতে অনেক কথা বৃষ্টি
  এসে ভিজিয়ে দিল
কথার আগুন পুড়িয়ে দিল যত গুচ্ছের
মান অভিমান , ইন্দ্রিয়সূখ, হাবিজাবি চিন্তা যত
এবার শুধু বলার পালা, লেখার পালা,
মায়ের ভাষা , আমার ভাষা ..
তোমার আমার নিবিড় সুখে, অকালবোধন
জীবনযাপন , ঘ্যানঘ্যানানি, খুঁজে পাওয়া অরূপরতন সবটুকু চাই ওই ভাষাতেই।
ভালোবাসার প্রথম পরশ, হারিয়ে ফেলা রথের মেলায় তোমার ছোঁয়া, বিদ্যুতেরই ঝলক
নিয়ে একশো লেখার রিনিঝিনি
ছন্দে গানে তালে- বোলে আ মরি বাংলা ভাষা।
 

 

 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন